001 (1)-min

বর্ণাঢ্য নবীন বরণ

বর্ণাঢ্য নবীন বরণ -‘আমি জেনেছি, শিক্ষার্থীদেরকে মেধায় ও মননে আধুনিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এ কলেজ সুনাম অর্জন করেছে, আমার এলাকায় এমন একটি কলেজ থাকায় আমি আনন্দবোধ করছি’ গত ৩১ জুলাই, ২০১৮ তারিখে অনুষ্ঠিত ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের ২৩তম ব্যাচের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় সংসদের ১১ আসনের মাননীয় এমপি জনাব রহমত উল্লাহ এ কথা বলেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য বিশিষ্ট সাহিত্যিক জনাব আনিসুল হক ছোট ছোট রসাত্মক শিক্ষামূলক গল্প বলে নবীনদের আনন্দ দেন। অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ড. সাজাহান মিয়া বলেন, ‘ঢাকা ইমপিরিয়াল অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি কলেজ, এ কলেজের শৃঙ্খলা ও লেখা পড়ার মান অত্যন্ত উচ্চমানের।’

বর্ণাঢ্য এই নবীন বরণ অনুষ্ঠানটি ১৪৮২জন নবাগত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, অতিথি এবং কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্যগণ উপভোগ করেন।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে কলেজের সাংস্কৃতিক ক্লাব নন্দন কাননের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

শিক্ষা সফর-২০১৮

ঢাকা ইমপিরিয়াল শিক্ষা সফর-২০১৮ – ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গত ২৩-২৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ৫ দিনব্যাপী আনন্দঘন শিক্ষা সফর সম্পন্ন করলো ইমপিরিয়াল ট্যুর ক্লাব। বান্দরবন-রাঙামাটি-চট্টগ্রামের ঐতিহ্যপূর্ণ মনোরম দর্শনীয় স্থানগুলো পর্যায়ক্রমে ঘুরে ঘুরে উপভোগ করে অভিযাত্রী দল। অধ্যক্ষসহ অন্যান্য শিক্ষকগণ সজীব সতেজ উচ্ছ্বল এই তরুন শিক্ষার্থীদের নিয়ে নির্বিঘে আনন্দে কাটিয়ে দেন শিক্ষাসফরের দিনগুলো। কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আরিফ আহমদ বলেন, ‘এ কলেজ প্রতিবছরই সুন্দরবনে শিক্ষার্থীদের নিয়ে সফর করে, একটু বৈচিত্র আনার জন্যই এবার পাহাড়ী অঞ্চলে এলাম।’

এই ক্লাব কলেজ অভ্যন্তরে বিজ্ঞান মেলা ও বিজ্ঞান বিষয়ক বিভিন্ন সভা, সেমিনারের আয়োজন করে এবং আন্তঃস্কুল ও কলেজ পর্যায়ে প্রজেক্ট প্রদর্শনের আয়োজন করে। এছাড়াও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান আয়োজিত এবং জাতীয় পর্যায়ের বিজ্ঞান বিষয়ক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। এ কলেজের যে-কোনো আগ্রহী শিক্ষার্থী এ ক্লাবের সদস্য হতে পারে।

আনন্দঘন বনভোজন

 

প্রতিবছরের মত এবারও ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ তারিখে গাজীপুরের আকর্ষণীয় পিকনিক স্পট অঙ্গণায় অনুষ্ঠিত হলো ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের বার্ষিক বনভোজন। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ ছিল বসন্ত বরণ, পিঠা উৎসব, শিক্ষক ও ছাত্রদের ক্রিকেট খেলা প্রতিযোগিতা ও র‌্যাফেল-ড্র ইত্যাদি। স্বতঃস্ফূর্তভাবে আড্ডা দেয়া ছবি তোলা আর ঘোরাঘুরিতে মেতেছিল বনভোজনে অংশগ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীসহ সকলে।

স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপন

আমাদের স্বাধীনতা আমাদের অহংকার। ২৬ মার্চ আলোচনা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে উদ্যাপিত হলো স্বাধীনতা দিবস অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন জনাব মোঃ নাজিমুল হক হক্কানী। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ত্ব করেন, কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আরিফ আহম্মদ।

অনার্স কোর্সের শুভযাত্রা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজে শুরু হলো বিবিএ (অনার্স) ও বিএ (অনার্স) শ্রেণির দুটি বিভাগের পদযাত্রা। ২০১৭-১৮ সেশনে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে বিবিএ (অনার্স) এবং ইংরেজি বিষয়ে বিএ (অনার্স) অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে শুভ সূচনা করলো এ কলেজ। এ বছরেই বাংলা ও ব্যবস্থাপনা বিষয়েও অনার্স খোলা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে এ কলেজের আরো অনেকগুলো বিষয়ে অনার্স খোলার প্রক্রিয়া চলছে। বিগত ৭ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে হিসাববিজ্ঞান (অনার্স) এবং ইংরেজি (অনার্স) বিভাগের নবাগত ছাত্র-ছাত্রীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম দিয়ে শুরু হয় স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির শুভযাত্রা।

বিজয় দিবস উদ্যাপন

কলেজ অডিটরিয়ামে উদ্যাপিত হলো বিজয় দিবস ২০১৭। ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের সম্মিলনের এই অনুষ্ঠানে প্রথমে বিজয় অর্জনের ইতিহাস নিয়ে আলোচনা করা হয় এবং পরে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের পরিবেশনায় সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থাপন করা হয়।

রক্তদান কর্মসূচি

প্রতিবছরের মতো এবারও ১৮ বছর উত্তীর্ণদের কাছ থেকে লায়ন্স ক্লাব অব ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজ প্রায় ৫০০ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করে। রক্তদানকারী সকলেই পায় একটি ডোনার কার্ড, যে কার্ড দিয়ে সে প্রয়োজনের সময় এ সংগঠন থেকে রক্ত সংগ্রহ করতে পারবে।

বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড

বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমি গত ২২ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে এ কলেজে আয়োজন করে বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা। পদার্থবিজ্ঞান, গণিত, রসায়ন, ও জীববিজ্ঞান বিষয়ে দুটি গ্রুপে ৫২টি স্কুল ও কলেজের ১০৫৪ জন বিজ্ঞান মনস্ক শিক্ষার্থী এ প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে। দিনব্যপী এ অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা এবং দ্বিতীয় পর্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান পরিচালিত হয়। অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ ছিলো একটুখানি বিজ্ঞান। বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমি পরিচালক ড. এম এ মাজেদ সারাদিন এই ক্ষুদে বিজ্ঞানীদের সাথে সময় কাটান।

 

প্রিন্সিপালস এ্যাওয়ার্ড

‘এই এ্যাওয়ার্ড হলো তোমাদের মেধার স্বীকৃতি, মনোযোগ দিয়ে পড়ার স্বীকৃতি। আমি বিশ্বাস করি, তোমরা সবাই মেধাবী যারা পুরষ্কার পাওনি তারা মনোযোগ দিয়ে ভালো করে পড়নি। এখন থেকে সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়বে। আগামী সেমিস্টারে যেন আরো বেশি শিক্ষার্থীকে এ্যাওয়ার্ড দিতে পারি’ গত ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে অনুষ্ঠিত প্রিন্সিপাল এ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) এ কথা বলেন।

কলেজের প্রতিটি সেমিস্টারের রেজাল্ট প্রকাশের পর মেধাক্রমের ভিত্তিতে প্রত্যেক শাখার প্রথম পাঁচজন শিক্ষার্থীকে প্রিন্সিপাল এ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। অন্যান্য বারের মত এবার তিনটি শাখার ১৫ জন শিক্ষার্থীকে এই পুরষ্কার দেয়া হয়। কলেজের অন্যান্য শিক্ষকগণ মেধাবী এই শিক্ষার্থীদেরকে বিভিন্ন প্রকারের উপহার সামগ্রী দিয়ে উৎসাহিত করেন।

ডিবেট কর্মশালা

সহশিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গত ১৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হলো ডিবেট কর্মশালা অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) অনুষ্ঠানটিও উদ্বোধন করেন এবং কর্মশালাটির মূল বক্তা ছিলেন ন্যাশনাল ডিবেট ফেডারেশনের সেক্রেটারী শাকিল মাহবুব। বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক শাখার প্রায় ১০০ জন ছাত্র-ছাত্রী এই কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

গত ২৫ মার্চ ২০১৮ তারিখে কলেজ অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। উক্ত অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক শাখার ১৪২৪ শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। দু’টি পর্বের অনুষ্ঠানে ১ম পর্বে পরীক্ষার্থীদের জন্য কোরআনখানি, দোয়া মোনাজাত পরিচালিত হয় এবং ২য় পর্বে আলোচনায় অধ্যক্ষসহ সংশ্লিষ্ট শিক্ষকগণ নির্দেশমূলক বক্তব্য দেন।

স্মরণসভা

২৪ মার্চ, ২০১৮ ছিলো প্রয়াত অধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহফুজুল হক মহোদয়ের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী। উক্ত দিনে কলেজ অডিটরিয়ামে কলেজ অধ্যক্ষসহ শিক্ষকগণ, তাঁর স্ত্রী ও তাঁর শুভাকাঙ্খীগণ তাকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং তাঁর বিভিন্ন অবদানের কথা বক্তব্যে উল্লেখ করেন। এর আগে তাঁর প্রতিকৃতিতে ফুলের শ্রদ্ধাঞ্জলী জানানো হয়।

আনন্দমুখর র‌্যাগ -ডে

‘নিজেদের উদ্যোগে এ ধরনের অনুষ্ঠানে আয়োজনের মধ্য দিয়ে তোমাদের মধ্যে গড়ে উঠবে আত্মবিশ্বাস আর নেতৃত্বের গুণাবলী’ গত ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ র‌্যাগ-ডে অনুষ্ঠানে কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আরিফ আহমদ এ কথা বলেন। এই দিন শিক্ষার্থীরা স্মৃতিচারণ করে এবং নাচে গানে মাতিয়ে রাখে পুরো অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট সেশনের সকল শিক্ষার্থী ও কলেজের শিক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য প্রতিটি সেশনের সমাপ্তিতে আনন্দঘন পরিবেশে র‌্যাগ-ডে উদ্যাপন এ কলেজের একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা কর্তৃপক্ষের তত্ত্ববধানে নিজেদের উদ্যোগে র‌্যাগ-ডে আয়োজন করে।

সরস্বতী পুজা উদ্যাপন

গত ২২ জানুয়ারি ১৮ তারিখে কলেজ অডিটরিয়ামে উদ্যাপিত হলো হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সরস্বর্তী পুজা উৎসব। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজ গভর্নিং বডির সম্মানিত সদস্য শ্রী স্বদেশ রঞ্জন সাহা এফসিএ বিশেষ অতিথি ছিলেন কলেজ অধ্যক্ষ আরিফ আহমদ। একলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থী ছাড়াও এলাকার ধর্মপ্রাণ হিন্দু সম্প্রদায় এ পুজা উৎসব উপভোগ করেন।